Union Council Election

ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ

যেকোন নির্বাচনে ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য স্থান। এখানে ভোটারগণ এসে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। আজ আমরা জানবো নির্বাচন কার্যক্রম পরিচালনায় ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ গুরুত্ব, স্থাপনের নিয়মাবলি, ও পালনীয় গোপনীয়তা সম্পর্কে।

স্থানীয় ও জাতীয় যেকোন নির্বাচনে ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ একটি আবশ্যকীয় অংশ। সঠিকভাবে ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ স্থাপন করা না হলে ভোটারগণ সঠিকভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেনা এবং নির্বাচন ব্যহতও হতে পারে।

ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ

১. ভােটকেন্দ্র এমন একটি স্থান যেখানে নির্বাচনের দিন ভােটারগণ ভােট প্রদান করেন। এটি একটি ভবন স্থাপনা, ভবনের অংশ বা ভবনের বাইরের কোন স্থান হতে পারে।

একটি ভােটকেন্দ্রের ভিতরে কয়েকটি ভােটকক্ষ থাকে। প্রতিটি ভােটকক্ষে একটি করে গােপনকক্ষ বা ভােটদান কক্ষ (মার্কিং প্লেস) থাকে যেখানে ভােটার মার্কিং সিল দ্বারা ব্যালট পেপারে ছাপ দিবেন। প্রতিটি ভােটকেন্দ্রের একটি স্বতন্ত্র ক্রমিক নম্বর ও নাম থাকবে।

২. ভােট কক্ষ হলাে ভােটকেন্দ্রের অভ্যন্তরে ভােট গ্রহণের স্থান। এটি স্থাপনার একটি কক্ষ বা কক্ষের অংশ বা নির্ধারিত স্থান হতে পারে। প্রিজাইডিং অফিসার ভােটকেন্দ্রের অভ্যন্তরে ভােটকক্ষের স্থান নির্ধারণ করবেন।

ভােটকেন্দ্র ও ভােটকক্ষ

ভােটকক্ষে ভােটারদেরকে ভােটদান প্রক্রিয়াতে সহায়তা করতে একদল ভােটগ্রহণ কর্মকর্তা (একজন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও দুইজন পােলিং অফিসার) একত্রে কাজ করবেন।

একটি নির্দিষ্ট ভােটকেন্দ্রের জন্য নির্ধারিত ভােটারের সংখ্যা ভােটকেন্দ্র অনুযায়ী কিছুটা ভিন্ন হতে পারে। সাধারণত
২০০০ (দুই হাজার) ভােটারের জন্য একটি করে ভােটকেন্দ্র এবং গড়ে সাধারণতঃ ৪০০ জন ভােটারের জন্য ১টি করে ভােটকক্ষ নির্ধারণ করতে হয়।

মহিলা ভােটারদের ভােট প্রদানের সুবিধার্থে মহিলা ভােটারদের জন্য পুরুষ ভােটারদের তুলনায় অধিক সংখ্যক ভােটকক্ষ স্থাপন করতে হবে। মহিলা ভােটারদের জন্য স্থাপিত প্রতিটি ভােট কক্ষে ৩০০ (তিনশত) হতে ৩৫০ (তিনশত পঞ্চাশ) ভােটারের ভােট দানের ব্যবস্থা রাখা যেতে পারে।

সংশ্লিষ্ট ভােটকেন্দ্রের ভােটার তালিকার ভােটারগণকে ভােটকক্ষ ভিত্তিক যতদূর সম্ভব (ভােটার তালিকার বিভক্তি বিবেচনায়) সমান ভাবে ভাগ করতে হবে। মহিলা ও পুরুষ ভােটারের জন্য অবশ্যই পৃথক পৃথক ভােটকক্ষ স্থাপন করতে হবে।

আরও পড়তে পারেন:

শিক্ষা, সংস্কৃতি, ব্যবসায়, চাকরি সংক্রান্ত যেকোন তথ্য সবার আগে পাওয়ার জন্য আমাদের ফেসবুক পেইজটি লাইক ও ফলো করে রাখুন এবং ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

সংশ্লিষ্ট তথ্য

একটি মন্তব্য যোগ করুন অথবা অভিযোগ পেশ করুন

Back to top button